‘লক্ষ্মীছানা’-র কী নাম রাখলেন বাসবদত্তা?


বন্ধন টিভি ডেস্ক
প্রকাশের সময় : আগস্ট ১১, ২০২২, ১০:২৯ অপরাহ্ণ / ৬০
‘লক্ষ্মীছানা’-র কী নাম রাখলেন বাসবদত্তা?

‘লক্ষ্মীছানা’-র কী নাম রাখলেন বাসবদত্তা? ২১ জুলাই প্রথমবার মাতৃত্বের স্বাদ পেয়েছিলেন অভিনেত্রী বাসবদত্তা চট্টোপাধ্যায়। হাসপাতালের বিছানা থেকে নিউলি মাম্মির সঙ্গে ছবি শেয়ার করেছিলেন অনির্বাণ বিশ্বাস। পরে বাসবদত্তা নিজেও মেয়ের সঙ্গে একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিলেন। তবে লিটল প্রিন্সের মুখ আড়ালেই রেখেছেন ছোট পর্দার এই অভিনেত্রী।

সদ্যোজাতের মুখ দেখার অপেক্ষায় রয়েছে ভক্তরা। তবে তার আগে ফেসবুক পেজে লিটল প্রিন্সের নাম প্রকাশ্যে আনলেন বাসবদত্তার বেটারহাফ অনির্বাণ বিশ্বাস। তাহলে জেনে নেওয়া যাক বাসবদত্তা আর অনির্বানের মেয়ের নাম কি রাখলেন এই তারকা জুটি। তাঁদের মেয়ের নাম আদিয়া। নাম প্রকাশ্যে আনার পরই কমেন্ট বক্স ভরে গিয়েছে ভালোবাসায় আর শুভেচ্ছায়।

অনির্বাণ আবার মজা করে লিখেছেন, ‘হ্যাঁ, এটাই আমার ছানার ভালো নাম’।
নাম জানার পর মেয়ের মুখ দেখার ইচ্ছাটা সকলের আরও একটু বেড়ে গিয়েছে তা বলার অবকাশই রাখছে না। নিউলি মমের সঙ্গে হাসপাতালের বিছানা থেকেই সেলফি পোস্ট করে অনির্বাণ ক্যাপশনে লিখেছিলেন। সেই সঙ্গে হার্ট ইমোজি আর মেয়ের ইমোজিও দিয়েছিলেন অনির্বাণ।

সকলে শুভেচ্ছা আর ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছিলেন। নিউলি পেরেন্টসকে জীবনের নতুন ইনিংসে পা দিয়ে আনন্দে আপ্লুত বাসবদত্তা ও অনির্বাণ। অন্যদিকে সদ্যোজাতের ছোট্ট হাতে আলতো চুমু খাওয়ার ছবি নিজের ফেসবুক পেজে শেয়ার করেছিলেন বাসবদত্তা। তাঁদের ঘর আলো করে এসেচে লক্ষ্মীসোনা। তাই ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে নিউলি মাম্মিও আদর করে লিখেছিলেন,’ লক্ষ্মীছানা।’ ২০১৮ সালে সাংবাদকি অনির্বান বিশ্বাসের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী। এক বন্ধুর মারফত আলাপ দু’জনের।

এরপর ভালোলাগা। তারপর প্রেম গড়ায় বিয়েতে। বিয়ের চার বছর পূর্তির পর সুখবর এল বাসবদত্তা-অনির্বাণের জীবনে।বয়িরে চার বছর পরই আরও এক নতুন অধ্যায়রে সূচনা করলনে এই স্টার কাপল। বাসবদত্তার বাবাও ছলিনে একজন চলচ্চত্রি সমালোচক। তনিি নজিওে চয়েছেলিনে সাংবাদকি হতইে। অভনিয়ে আসার কোনও ইচ্ছওে তাঁর ছলি না। কন্তিু ঋতুর্পণ ঘোষরে তরফ থকেে ধারাবাহকিরে অফার আসার পর থকেে পুরোপুরি অভনিয়ে মনোনবিশে করনে অভনিত্রেী।

আরও পড়ুন: খোলামেলা পোশাকে অপ্রস্তুত! হাত দিয়ে শরীর ঢাকলেন অঙ্কিতা

ঋতুর্পণ-র ধারাবাহকি ‘গানরে ওপার’ে মাধ্যমে ছোট র্পদায় আত্মপ্রকাশ। তারপর ‘বয়ইে গলে’ ধারাবাহকিে মুখ্য চরত্রি।ে এছাড়াও একাধকি ধারাবাহকিমেুখ্য চরত্রিে দখো গয়িছেে তাঁক।ে সম্প্রতি বাসবদত্তাকে দখো গয়িছেে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় পরচিালতি সৌমত্রি চট্টোপাধ্যায়রে বায়োপকি (ঝড়ঁসরঃৎধ ঈযধঃঃবৎলবব নরড়ঢ়রপ)‘অভযিান’-এ। ‘শ্রাবণরে ধারা’, ‘রক্ত রহস্য’ মতো ছবতিে প্রশংসতি হয়ছেে বাসবদত্তার অভনিয়।

Spread the love
Link Copied !!